ইন্টারনেটে আয় এর অসংখ্য ওয়েবসাইট থাকলেও অনেক মানুষ পেমেন্টের সুবিধার্থে বাংলাদেশী অনলাইনে ইনকাম  সাইট এর খোঁজে থাকেন। এই পোস্টে ইন্টারনেটে  এর জন্য বাংলাদেশী সাইট সম্মন্ধে জানবেন। এখানে আমরা মূলত বাংলাদেশী ফ্রিল্যান্সিং ও অ্যাফিলিয়েট ওয়েবসাইট সম্মন্ধে আলোচনা করবো।

কাজ খুঁজি – বাংলাদেশী অনলাইনে ইনকাম সাইট

বাংলাদেশী ফ্রিল্যান্সিং ওয়েবসাইটের মধ্যে বর্তমানে একটি সক্রিয় প্ল্যাটফর্ম হলো কাজ খুঁজি ডট কম। ইতিমধ্যে আমাদের একের অধিক পোস্টে আমরা এই সাইটটি উল্লেখ করেছি। বাংলাদেশী টাকা  ওয়েবসাইট হওয়ার কারণে ওয়েবসাইটটির ক্লায়েন্ট বাংলাদেশী, যার ফলে কমিউনিকেশন ও পেমেন্টের ক্ষেত্রে বেশ অ্যাডভান্টেজ হয়।

অর্থাৎ এখানে ক্লায়েন্ট সঙ্গে প্রজেক্ট নিয়ে আলোচনা করার জন্য ইংলিশ জানতে হচ্ছেনা, আবার পেমেন্ট এর জন্য পেপাল এর চাই পড়ছেনা। দেশী মুঠো ফোন ব্যাংকিং সার্ভিস বিকাশ, নগদ, ইত্যাদির সাহায্যে অর্জিত অর্থ উইথড্র করার সুযোগ প্রদান করে কাজ খুঁজি।

যারা ফাইভার এর সঙ্গে পরিচিত আছেন, তাদের নিকট কাজখুঁজি ওয়েবসাইটটি প্রয়োগ বেশ সহজ মনে হবে। ফাইভার এর মত কাজখুঁজি ডট কম সাইটটিতে ফ্রিল্যান্সার তার কাজ নিয়ে গিগ পোস্ট করেন ও বায়ার নিজেদের প্রয়োজন অনুসারে ফ্রিল্যান্সিং গিগ বেছে নেন। ফাইভার বা আপওয়ার্ক এর মত ওয়েবসাইটের অনেক প্রতিযোগিতার ভিড়ে অননুপ্রাণিত অনুভব করলে দেশী ফ্রিল্যান্সিং প্ল্যাটফর্ম, কাজখুঁজি প্রয়োগ করে দেখতে পারেন। কিন্তু হ্যাঁ, বেশি  করতে চাইলে আপনাকে একের অধিক প্ল্যাটফর্মে একাউন্ট রাখার জন্য হবে।

টেন মিনিট স্কুল

টেন মিনিট স্কুল এর সাথে নিউ করে পরিচয় করে দেওয়ার কিছুই নেই। অথচ টেন মিনিট বিদ্যালয় যে অনলাইনে রোজগার এর বাংলাদেশী ওয়েবসাইট এর ভিতরে একটি, সেটি ভুলে গেলে অথচ চলবেনা। টেন মিনিট বিদ্যালয় এর অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রাম এর মাধ্যমে যেকেউ ইন্টারনেটে আয় করতে পারে। টেন মিনিট বিদ্যালয় এর কোর্স, বই ও আদার্স আধুনিক প্রোডাক্ট অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং করে সেখান হতে অনলাইনে আয় করা যায়। টেন মিনিট স্কুলের অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রামে যুক্ত হয়ে প্রোডাক্ট শক্তিস্তর থেকে কমিশন এর মাধ্যমে আয় করার জন্য পারবেন যেকেউ।

দারাজ – বাংলাদেশী অনলাইনে ইনকাম সাইট

দারাজ বাংলাদেশের ম্যাক্সিমাম জনপ্রিয় ই-কমার্স মার্কেটপ্লেসের মধ্যে একটি। দারাজে থাকা অসংখ্য প্রোডাক্ট নিয়ে অ্যাফিলিয়েট মার্কেটিং এর সুযোগ রয়েছে। যেকেউ দারাজ অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রামে যুক্ত হয়ে সেখান থেকে আয় করতে পারে। আবার প্রায় সব ধরনের প্রোডাক্টে অ্যাফিলিয়েট প্রচার এর চান্স থাকায় নিজের পছন্দমত প্রোডাক্ট বেছে নেওয়ার চান্স রয়েছে।

দারাজে অগণিত ক্যাটাগরির অগণিত প্রোডাক্ট রয়েছে। দারাজ এর ক্যাটালগ বড় হওয়ায় সাইটটি থেকে আয়ের সুযোগ অধিক। নানারকম মার্কেটিং চ্যানেলে দারাজ অ্যাফিলিয়েট প্রোডাক্ট প্রোমোট করে পেয়ে যান কমিশন। আবার দারাজ অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রামে পাওয়া ডিস্কাউন্ট বেশ ইজিলি তুলে নেওয়ার সুযোগও রয়েছে। নিজের ওয়েবসাইট বা ইউটিউব চ্যানেলের পাশাপাশি কেউ প্রোডাক্ট সাজেশন চাইলে ওই জায়গা অ্যাফিলিয়েট ইউআরএল শেয়ার করে বেশ সহজে দারাজ হতে আয় করা যেতে পারে।

বিকাশ

যেকোনো বিকাশ ব্যবহারকারী রেফার করে জিতে নিতে পারেন ১০০টাকা রেফারেল বোনাস। বিকাশ বিজনেস ড্যাশবোর্ড একাউন্টে নিউ ইউজারকে সাকসেস ভাবে রেফার করলে পেয়ে যাবেন ১০০টাকা রেফারেল বোনাস। পরিবারের সদস্য, বন্ধু বা যে কেউ আপনার রেফারেল ইউআরএল এর সাহায্যে বিকাশ একাউন্ট খুললে পেয়ে যাবেন প্রচার রেফার বোনাস। সকল বিকাশ ইউজার রেফার বোনাস নিতে পারেন। 

শিখো

অনলাইন কোর্স এর বাংলাদেশী ওয়েবসাইট, শিখো এর অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রাম থেকে অনলাইনে  করা যেতে পারে। সুনির্দিষ্ট ফর্ম এর মাধ্যমে যেকেউ শিখো এর অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রামে যুক্ত হতে পারে। আবেদন করার পর শিখো এর অ্যাফিলিয়েট দল আপনার সঙ্গে যোগাযোগ করবে। শিখো এর কোর্সগুলো অ্যাফিলিয়েট প্রচার করে আয় করতে পারবেন যেকেউ। 

এক্সনহোস্ট

বাংলাদেশের জনপ্রিয় হোস্টিং প্রোভাইডার এক্সনহোস্ট এর অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রামে যুক্ত হয়ে ২০% পর্যন্ত কমিশন পেতে পারেন। শেয়ারড হোস্টিং, প্রাইভেট হোস্টিং, রিসেলার হোস্টিংসহ সকল প্ল্যান অ্যাফিলিয়েট প্রচার এর সাহায্যে এক্সন হোস্ট থেকে আয় করার জন্য পারবেন। এক্সনহোস্টের ওয়েবসাইটে ফ্রি একাউন্ট খুলে অ্যাফিলিয়েট প্রোগ্রামে যুক্ত হয়ে আয় করার জন্য পারবেন বেশ সহজে।

ফেসবুক প্রফেশনাল মোড থেকে কিভাবে টাকা আয় করে?